উবুন্টু ১৯.০৪ “ডিস্কো ডিংগো” এর প্রকাশনা উদযাপন

Banner of Ubuntu 19.04 (Disco Dingo) Release Party

Banner of Ubuntu 19.04 (Disco Dingo) Release Party

এই প্রথম একটি ডিস্ট্রোর প্রকাশনা উদযাপন করা হলো ইফতার আয়োজনের মাধ্যমে। উবুন্টুর নতুন সংস্করন ১৯.০৪(ডিস্কো ডিংগো) এর প্রকাশনা উদযাপন আয়োজনটি আয়োজিত হলো গত ১৮ মে ২০১৯ইং, রোজ শনিবার।

Read More

“পেঙ্গুইন মেলা – ২০১৯” — ইউনাইটেড ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি

প্রযুক্তি জগতে বহুল আলোচিত বিষয়গুলোর মধ্যে একটি হল, “ব্যবহারকারীর ব্যক্তিগত তথ্যের সুরক্ষা”। অথচ সাধারণ ব্যবহারকারীদের মাঝে এই বিষয়ে কোনরূপ ধারণাই নেই।তারা তাদের ব্যক্তিগত তথ্যের সুরক্ষার জন্য ন্যূনতম মাথা খাটায় না।সাধারণ ব্যবহারকারীর সেই ব্যক্তিগত তথ্যের সুরক্ষার সাথে সাথে প্রযুক্তি জগতে তাদের চুড়ান্ত স্বাধীনতা নিশ্চিত করতে রয়েছে Free Software।

কি এই ফ্রি সফটওয়্যার? মাগনা পাওয়া সফটওয়্যার নাকি অন্য কিছু?

Read More

আসন্ন আয়োজন

আসন্ন আয়োজন

“পেঙ্গুইন মেলা – ২০১৯” — ইউনাইটেড ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি

প্রযুক্তি জগতে বহুল আলোচিত বিষয়গুলোর মধ্যে একটি হল, “ব্যবহারকারীর ব্যক্তিগত তথ্যের সুরক্ষা”। অথচ সাধারণ ব্যবহারকারীদের মাঝে এই বিষয়ে কোনরূপ ধারণাই নেই। তারা তাদের ব্যক্তিগত তথ্যের সুরক্ষার জন্য ন্যূনতম মাথা খাটায় না।
সাধারণ ব্যবহারকারীর সেই ব্যক্তিগত তথ্যের সুরক্ষার সাথে সাথে প্রযুক্তি জগতে তাদের চুড়ান্ত স্বাধীনতা নিশ্চিত করতে রয়েছে Free Software।
কি এই ফ্রি সফটওয়্যার? মাগনা পাওয়া সফটওয়্যার নাকি অন্য কিছু?
এই বিষয়ের সাথে সাথে প্রযুক্তি জগতের আরো কিছু বিষয় নিয়ে আলোচনা করতে এবং ফ্রি সফটওয়্যার ব্যবহারের পথ দেখাতে ইউনাইটেড ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটিতে আয়োজিত হতে যাচ্ছে এফওএসএস বাংলাদেশের নিয়মিত আয়োজন “পেঙ্গুইন মেলা”।

সময়: দুপুর ১২ টা – দুপুর ২ টা
স্থান: রুম ১২৬, ইউআইইউ ক্যাম্পাস
ঠিকানা: ইউনাইটেড সিটি, মাদানী অ্যাভিনিউ, বাড্ডা, ঢাকা-১২১২।

আয়োজনে অংশগ্রহণ করে ফ্রি সফটওয়্যার কি, কিভাবে এটা আপনার ব্যক্তি স্বাধীনতাকে অক্ষুন্ন রাখে এবং কেন এমন সফটওয়্যার ব্যবহার করা উচিত, বিষয়গুলো জানতে আপনারা স্বাদরে আমন্ত্রিত।

 

সংগঠনের পুরো নাম: ফাউন্ডেশন ফর ওপেন সোর্স সলিউশনস বাংলাদেশ
সংক্ষেপিত নাম : এফওএসএস বাংলাদেশ বা FOSS Bangladesh
সংগঠনের ধরণ: মুক্ত স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন

আন্তর্জালিক ঠিকানা: http://www.fossbd.org
সাংগঠনিক ফোরাম: http://forum.fossbd.org

ইমেইলে যোগাযোগ:
সাংগঠনিক যোগাযোগ: contact AT fossbd DOT org
সহযোগীতা সেবা: sos AT fossbd DOT org

“পেঙ্গুইন মেলা – ২০১৬” – নর্থসাউথ ইউনিভার্সিটি”

মুক্ত সফটওয়্যার আন্দোলন একটি সামাজিক আন্দোলন যার উদ্দেশ্য কম্পিউটার ব্যবহারকারীর অধিকার সংরক্ষণ করা। এই উদ্দেশ্য বাস্তবায়নের লক্ষ্যে মুক্ত সফটওয়্যার আন্দোলন, মুক্ত সফটওয়্যার তৈরি করতে, ব্যবহার করতে এবং মানোন্নয়ন করতে উৎসাহ প্রদান করে। “সফটওয়্যার চোর” অপবাদ থেকে নিজের প্রানের প্রিয় এই বাংলাদেশকে কালিমামুক্ত করতে এবং সফটওয়্যার প্রযুক্তিতে স্বনির্ভর ও মুক্তপ্রযুক্তি নির্ভর বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্যে মুক্ত সফটওয়্যার, লিনাক্স ও উন্মুক্ত সোর্স ভিত্তিক সফটওয়্যারকে ছড়িয়ে দেবার প্রত্যয়ে মুক্ত প্রযুক্তি ভিত্তিক সফটওয়্যার, লিনাক্স এবং বিভিন্ন সেবাসমূহ নিয়ে কাজ করে যাচ্ছে এফওএসএস বাংলাদেশ (ফাউন্ডেশন ফর ওপেন সোর্স সলিউশনস বাংলাদেশ)।

উন্মুক্ত প্রযুক্তি ও মুক্ত সফটওয়্যার বিষয়ে এফওএসএস বাংলাদেশ এর জনসচেতনতামূলক একটি আয়োজন “পেঙ্গুইন মেলা”। এফওএসএস বাংলাদেশ এবং নর্থসাউথ ইউনিভার্সিটি এর ইলেক্ট্রিক্যাল, ইলেকট্রনিক্স, কম্পিউটার ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের সম্মিলিত উদ্যোগে ২৬শে জুলাই ২০১৬ইং মঙ্গলবার, ঢাকার বসুন্ধরায় অবস্থিত নর্থসাউথ ইউনিভার্সিটি এর এনএসি-২১১ কক্ষে “পেঙ্গুইন মেলা” অনুষ্ঠিত হয়। আয়োজন সহযোগীতায় রয়েছে আইইইই ডব্লিউআইই অ্যাফফিনিটি গ্রুপ, এনএসইউ শিক্ষার্থী শাখা।

এই আয়োজনে ছিল —
# সফটওয়্যার ও সফটওয়্যার পাইরেসি বিষয়ক আলোচনা
# সফটওয়্যার পাইরেসি থেকে মুক্ত হবার উপায় নিয়ে বিশদ আলোচনা
# মুক্ত সফটওয়্যার, ওপেনসোর্স ও জিএনইউ-লিনাক্স বিষয়ে আলোচনা
# অংশগ্রহনকারী দর্শকদের সাথে মতামত বিনিময় ও সরাসরি আলোচনা।
# আয়োজনের শেষাংশে জিএনইউ/লিনাক্স ডিস্ট্রো ইন্সটলেশন এবং ব্যবহার সহযোগীতার ব্যবস্থা। যেখানে জিএনইউ-লিনাক্স ভিত্তিক বিভিন্ন ডিস্ট্রোর আইএসও পেনড্রাইভে সংগ্রহ ও ইন্সটল করে নেয়া যাবে।

লিনাক্স মিন্ট ১৮ “সারাহ”র প্রকাশনা উদযাপন

প্রতি বছরের মে এবং নভেম্বর মাসের শেষ সপ্তাহে “লিনাক্স মিন্ট” এর সংস্করনগুলো প্রকাশিত হয়ে থাকে। উবুন্টু’র এলটিএস এবং ডেবিয়ানের স্টেবল ডিস্ট্রোসমূহের উপরে ভিত্তি করে প্রস্তুতকৃত এই জিএনইউ/লিনাক্স ডিস্ট্রোটি বিগত ২০১৩ইং সাল থেকেই উবুন্টু’র চাইতেও বেশী জনপ্রিয়তা পেয়ে সারা বিশ্বের লিনাক্স ডিস্ট্রো ব্যবহারকারীদের পছন্দের তালিকায় এক নম্বরে রয়েছে। চলতি ২০১৬ইং সালে লিনাক্স মিন্টের সাম্প্রতিকতম প্রকাশনাটি হয়েছে বিগত ৩০শে জুন দিবাগত রাত্রে আর এর সাংকেতিক নাম রাখা হয়েছে-”সারাহ”। এবারের সংস্করণটিতে বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ পরিবর্তন আনা হয়েছে। এটিকে আরো বেশী ব্যবহারকারী বান্ধব করা হয়েছে, সংযুক্ত সফটওয়্যারগুলোর হালনাগাদকৃত সংস্করণ যুক্ত করা হয়েছে, ফাইল ম্যানেজারকে আরো বেশী দ্রুতগতির ও আরো বেশী ফিচারসমৃদ্ধ করা হয়েছে। ওয়ালপেপারসমূহে আনা হয়েছে দৃষ্টিনন্দন ছোঁয়া। সব মিলিয়ে লিনাক্সমিন্টের এই সংস্করনটি নবীন কম্পিউটার ব্যবহাকারীদের জন্য “ছোট্ট কিন্তু পরিপূর্ণ এক প্যাকেজ” 🙂

Read More

পেঙ্গুইন মেলা – ২০১৬” – ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি

মুক্ত সফটওয়্যার আন্দোলন একটি সামাজিক আন্দোলন যার উদ্দেশ্য কম্পিউটার ব্যবহারকারীর অধিকার সংরক্ষণ করা। এই উদ্দেশ্য বাস্তবায়নের লক্ষ্যে মুক্ত সফটওয়্যার আন্দোলন, মুক্ত সফটওয়্যার তৈরি করতে, ব্যবহার করতে এবং মানোন্নয়ন করতে উৎসাহ প্রদান করে। “সফটওয়্যার চোর” অপবাদ থেকে নিজের প্রানের প্রিয় এই বাংলাদেশকে কালিমামুক্ত করতে এবং সফটওয়্যার প্রযুক্তিতে স্বনির্ভর ও মুক্তপ্রযুক্তি নির্ভর বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্যে মুক্ত সফটওয়্যার, লিনাক্স ও উন্মুক্ত সোর্স ভিত্তিক সফটওয়্যারকে ছড়িয়ে দেবার প্রত্যয়ে মুক্ত প্রযুক্তি ভিত্তিক সফটওয়্যার, লিনাক্স এবং বিভিন্ন সেবাসমূহ নিয়ে কাজ করে যাচ্ছে এফওএসএস বাংলাদেশ (ফাউন্ডেশন ফর ওপেন সোর্স সলিউশনস বাংলাদেশ)।

উন্মুক্ত প্রযুক্তি ও মুক্ত সফটওয়্যার বিষয়ে এফওএসএস বাংলাদেশ এর জনসচেতনতামূলক একটি আয়োজন “পেঙ্গুইন মেলা”। এফওএসএস বাংলাদেশ এবং ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি’র ইলেক্ট্রিক্যাল, ইলেকট্রনিক্স ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের সম্মিলিত উদ্যোগে “পেঙ্গুইন মেলা” অনুষ্ঠিত হয় ৪ঠা জুন ২০১৬ইং বৃহস্পতিবার, সকাল ১১টা থেকে দুপুর ২টা অবদি, ঢাকার ৬৬ গ্রীন রোডে অবস্থিত ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি’র ডঃ এম আই পাটোয়ারী মিলনায়তনে।

এই আয়োজনে ছিল —
# সফটওয়্যার ও সফটওয়্যার পাইরেসি বিষয়ক আলোচনা
# সফটওয়্যার পাইরেসি থেকে মুক্ত হবার উপায় নিয়ে বিশদ আলোচনা
# মুক্ত সফটওয়্যার, ওপেনসোর্স ও জিএনইউ-লিনাক্স বিষয়ে আলোচনা
# অংশগ্রহনকারী দর্শকদের সাথে মতামত বিনিময় ও সরাসরি আলোচনা।
# আয়োজনের শেষাংশে জিএনউউ/লিনাক্স ডিস্ট্রো ইন্সটলেশন এবং ব্যবহার সহযোগীতার ব্যবস্থা। যেখানে জিএনইউ-লিনাক্স ভিত্তিক বিভিন্ন ডিস্ট্রোর আইএসও পেনড্রাইভে সংগ্রহ ও ইন্সটল করে নেয়া যাবে।

আয়োজনের কিছু ছবির সংকলন।

“পেঙ্গুইন মেলা – ২০১৬” – ইনডিপেন্ডেন্ট ইউনিভার্সিটি বাংলাদেশ

মুক্ত প্রযুক্তি আন্দোলনটি একটি সামাজিক আন্দোলন যার উদ্দেশ্য প্রযুক্তি ব্যবহারকারীর অধিকার সংরক্ষণ করা। এই উদ্দেশ্য বাস্তবায়নের লক্ষ্যে মুক্ত প্রযুক্তি আন্দোলন, মুক্ত সফটওয়্যার ও হার্ডওয়্যার তৈরি করতে, ব্যবহার করতে এবং মানোন্নয়ন করতে উৎসাহ প্রদান করে। “সফটওয়্যার চোর” অপবাদের থেকে নিজের প্রানের প্রিয় এই বাংলাদেশকে কালিমামুক্ত করতে এবং প্রযুক্তিতে স্বনির্ভর ও মুক্তপ্রযুক্তি নির্ভর বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্যে মুক্ত সফটওয়্যার, লিনাক্স ও উন্মুক্ত সোর্স ভিত্তিক সফটওয়্যারকে ছড়িয়ে দেবার প্রত্যয়ে মুক্ত প্রযুক্তি ভিত্তিক সফটওয়্যার, লিনাক্স এবং বিভিন্ন সেবাসমূহ নিয়ে কাজ করে যাচ্ছে এফওএসএস বাংলাদেশ (ফাউন্ডেশন ফর ওপেন সোর্স সলিউশনস বাংলাদেশ)।

উন্মুক্ত প্রযুক্তি ও মুক্ত সফটওয়্যার বিষয়ে এফওএসএস বাংলাদেশ এর জনসচেতনতামূলক একটি আয়োজন “পেঙ্গুইন মেলা”। ইনডিপেন্ডেন্ট ইউনিভার্সিটি বাংলাদেশ এর কম্পিউটার প্রকৌশল বিভাগ এবং এফওএসএস বাংলাদেশ এর যৌথ উদ্যোগে  “পেঙ্গুইন মেলা” অনুষ্ঠিত হয় ২ জুন ২০১৬ ইং বৃহস্পতিবার, সকাল ১১টা থেকে দুপুর ২টা অবদি ঢাকার বসুন্ধরা আবাসিকে অবস্থিত ইনডিপেন্ডেন্ট ইউনিভার্সিটি বাংলাদেশ ক্যাম্পাসের জিপিএল মিলনায়তনে।

এই আয়োজনে ছিল —
# সফটওয়্যার ও সফটওয়্যার পাইরেসি বিষয়ক আলোচনা
# সফটওয়্যার পাইরেসি থেকে মুক্ত হবার উপায় নিয়ে বিশদ আলোচনা
# মুক্ত সফটওয়্যার, ওপেনসোর্স ও জিএনইউ-লিনাক্স বিষয়ে আলোচনা
# অংশগ্রহনকারী দর্শকদের সাথে মতামত বিনিময় ও সরাসরি আলোচনা।
# আয়োজনের শেষাংশে জিএনউউ/লিনাক্স ডিস্ট্রো ইন্সটলেশন এবং ব্যবহার সহযোগীতার ব্যবস্থা। যেখানে জিএনইউ-লিনাক্স ভিত্তিক বিভিন্ন ডিস্ট্রোর আইএসও পেনড্রাইভে সংগ্রহ ও ইন্সটল করে নেয়া যাবে।

আয়োজনের কিছু ছবির সংকলন।

“হার্ডওয়্যার মুক্তি দিবস – ২০১৬” — বাংলাদেশ আয়োজন

মুক্ত হার্ডওয়্যার আন্দোলন একটি সামাজিক আন্দোলন যার উদ্দেশ্য যে কোন প্রযুক্তি ব্যবহারকারীর নিজ পছন্দ অনুযায়ী যে কোন হার্ডওয়্যার ক্রয় ও ব্যবহারের অধিকার সংরক্ষণ করা। এই উদ্দেশ্য বাস্তবায়নের লক্ষ্যে মুক্ত হার্ডওয়্যার আন্দোলন, মুক্ত হার্ডওয়্যার তৈরি করতে, ব্যবহার করতে এবং মানোন্নয়ন করতে উৎসাহ প্রদান করে থাকে। এই আন্দোলনকে ত্বরান্বিত করতে বিগত ২০১৩ইং সাল থেকে বছরের প্রথম মাস জানুয়ারীর তৃতীয় শনিবারে “হার্ডওয়্যার মুক্তি দিবস” উদযাপনের পরিকল্পনা করা হয়ে আসছে। এ বছরে এই দিনটি বাংলাদেশে পালিত হতে যাচ্ছে ২৭শে মে, ২০১৬ইং।

এফওএসএস বাংলাদেশ এ বছর দেশের সকল উন্মুক্ত প্রযুক্তিপ্রেমীকে সাথে নিয়ে পালন করতে যাচ্ছে “হার্ডওয়্যার মুক্তি দিবস – ২০১৬” বাংলাদেশ আয়োজন।

আয়োজনের বিস্তারিত:
বিকাল ১৭:৩০ – বিকাল ১৮:০০ — মুক্ত হার্ডওয়্যার ব্যবহারে বাস্তব প্রকল্প উপস্থাপন/প্রদর্শণী (টিম নাটবল্টু)
দুপুর ১৮:০০ – বিকাল ১৮:৩০ — সরাসরি মতবিনিময় ও প্রশ্নোত্তর।

আয়োজন সমন্বয়কারী:
সগীর হোসাইন খান +৮৮০১৯১৩৪৭৫৯৪৬

“হার্ডওয়্যার মুক্তি দিবস – ২০১৬” — বাংলাদেশ আয়োজন

মুক্ত হার্ডওয়্যার আন্দোলন একটি সামাজিক আন্দোলন যার উদ্দেশ্য যে কোন প্রযুক্তি ব্যবহারকারীর নিজ পছন্দ অনুযায়ী যে কোন হার্ডওয়্যার ক্রয় ও ব্যবহারের অধিকার সংরক্ষণ করা। এই উদ্দেশ্য বাস্তবায়নের লক্ষ্যে মুক্ত হার্ডওয়্যার আন্দোলন, মুক্ত হার্ডওয়্যার তৈরি করতে, ব্যবহার করতে এবং মানোন্নয়ন করতে উৎসাহ প্রদান করে থাকে। এই আন্দোলনকে ত্বরান্বিত করতে বিগত ২০১৩ইং সাল থেকে বছরের প্রথম মাস জানুয়ারীর তৃতীয় শনিবারে “হার্ডওয়্যার মুক্তি দিবস” উদযাপনের পরিকল্পনা করা হয়ে আসছে। এ বছরে এই দিনটি বাংলাদেশে পালিত হয় ২৭শে মে, ২০১৬ইং।

Read More

উবুন্টু ১৬.০৪ “জেনিয়াল জেরাস” এর প্রকাশনা উদযাপন

বিগত ২১শে এপ্রিল ২০১৬ইং উবুন্টুর সাম্প্রতিকতম সংস্করণ ১৬.০৪ “জেনিয়াল জেরাস” সাংকেতিক নামে প্রকাশিত হয়েছে। উবুন্টু’র প্রতিটি সংস্করণ প্রকাশিত হবার পরপরই বিশ্বের প্রায় প্রতিটি উবুন্টু লোকো (লোকো == লোকাল কমিউনিটি == দেশীয়/স্থানীয় ব্যবহারকারী, মানোন্নয়কারী, অনুবাদক) উবুন্টুর এই প্রকাশনাকে বিভিন্ন রকমের আনন্দ আয়োজনের মাধ্যমে উদযাপন করে থাকে। যার নামকরণ করা হয় — “উবুন্টু রিলিজ পার্টি” শিরোনামে। এটি একটি বৈশ্বিক আয়োজন বা গ্লোবাল ইভেন্ট অর্থাৎ এটি সারা বিশ্বেই পালিত হয়ে থাকে।

এবারের এই নতুন সংস্করণটি প্রকাশিত হবার পর আমরাও বিশ্ববাসীর সাথে এই আনন্দ আয়োজন উদযাপনের আকাঙ্খা ব্যক্ত করছি। ইনশাল্লাহ আগামী ১৩ই মে ২০১৬ইং, শুক্রবার বিকাল ৪টা থেকে ৬টা অবদি আমরা বাংলাদেশের উবুন্টু প্রেমীরাও, “উবুন্টু ১৬.০৪” বা “জেনিয়াল জেরাস” এর প্রকাশনা উদযাপন করবো।

আয়োজনের বিস্তারিতঃ
স্থান: মিলনায়তন, ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি। ড্যাফোডিল টাওয়ার ৪ (সোবহানবাগ, প্রিন্সপ্লাজা) ৪তলায়।
তারিখ: ১৩ই মে ২০১৬ইং, শুক্রবার।
সময়: বিকাল ৪টা থেকে ৬টা

আয়োজন সূচীঃ
# উবুন্টু কী, কেন?
# উবুন্টু ব্যবহারকারীদের নির্ভেজাল আড্ডা ও অভিজ্ঞতার গল্প
# উবুন্টু ১৬.০৪ এর নতুন বৈশিষ্ট্যগুলো নিয়ে মিনিট সাতেকের একটি চলমান চিত্র প্রদর্শনী
# কেক কেটে উবুন্টু’র নতুন প্রকাশনা উদযাপন

আয়োজনে আপনার অংশগ্রহণ নিশ্চিত করে আমাদেরকে তথ্য দিন, আয়োজনে সহযোগীতা করুন — http://goo.gl/forms/JeCqZnmW0C

আয়োজন পরবর্তী প্রতিবেদন

ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি’র সফটওয়্যার প্রকৌশল বিভাগ এবং এফওএসএস বাংলাদেশ এর যৌথ আয়োজনে গতকাল ১৩ই মে, ২০১৬ইং শুক্রবার বাংলাদেশের সাধারন উবুন্টুপ্রেমী ও ব্যবহারকারীদের অংশগ্রহনে উবুন্টু ১৬.০৪ “জেনিয়াল জেরাস” এর প্রকাশনা উদযাপন আয়োজন হয়ে গেলো, ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি’র মিলনায়তনে। বিকাল ৪টা থেকে সন্ধ্যে সাড়ে ৬টা ব্যাপী এ আয়োজনটি সকলের জন্য উন্মুক্ত ছিলো। আয়োজনে ব্যবহারকারীদের সবার সাথে সবার পরিচিতি-আড্ডা, উবুন্টু ১৬.০৪ এর নতুন পরিসেবাগুলো নিয়ে ছিলো উপস্থাপনা, ছিলো জমজমাট আপ্যায়ন পর্বও। সাধারন ব্যবহারকারী এবং আগ্রহীজনদের ল্যাপটপ/নেটবুক/নোটবুক এ উবুন্টু’র নতুন সংস্করনটি ইন্সটল এবং ব্যবহার সংক্রান্ত সেবা প্রদানের লক্ষ্যে ছিলো ”জিএনইউ/লিনাক্স ডিস্ট্রো ইন্সটলেশন এবং ব্যবহার সহযোগীতা সেবা” বুথ, জিএনইউ/লিনাক্স ভিত্তিক বিভিন্ন ডিস্ট্রোর আইএসও পেনড্রাইভে কিংবা পছন্দের মিডিয়াতে সংগ্রহের ব্যবস্থা।

উল্লেখ্য যে, বিশ্বের প্রায় প্রতিটি দেশেই উবুন্টু’র ব্যবহারকারীরা প্রতিটি সংস্করনের প্রকাশ হবার পরপরই আনন্দ আয়োজনের মাধ্যমে উবুন্টু’র প্রকাশণাটিকে স্বাগত জানিয়ে থাকেন। আয়োজনের কিছু ছবির সংকলন পাবেন এখানে।