“উন্মুক্ত শিক্ষা দিবস” আয়োজনটি একটি বৈশ্বিক আয়োজন। মানে পুরো পৃথিবীর বিভিন্ন অবস্থানে বিভিন্ন সামাজিক ও শিক্ষা ভিত্তিক প্রতিষ্ঠান ও সংগঠন এই আয়োজনে অংশ নেবে এবং সক্রিয়ভাবে উদযাপন করবে দিবসটিকে। উন্মুক্ত শিক্ষা আন্দোলন একটি সামাজিক আন্দোলন যার উদ্দেশ্য প্রযুক্তির ব্যবহারে “শিক্ষা” নামক মৌলিক অধিকারটুকু সবার জন্য সুনিশ্চিত করা। এই উদ্দেশ্য বাস্তবায়নের লক্ষ্যে উন্মুক্ত শিক্ষা আন্দোলন উন্মুক্ত সফটওয়্যার, উন্মুক্ত পাঠ্যবই, উন্মুক্ত শিক্ষা উপকরন তৈরি করতে, ব্যবহার করতে এবং মানোন্নয়ন করতে উৎসাহ প্রদান করে থাকে।

শিক্ষায় ব্যবহৃত সফটওয়্যার এবং মুক্ত সফটওয়্যার সমূহের ব্যবহারে শিক্ষায় অগ্রগতি, উন্মুক্ত শিক্ষা উপকরণ এবং চলমান প্রকল্পসমূহকে শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের মাঝে উপস্থাপন করতেই এই আয়োজনটি করা হয়। ২০১৩ইং সালে এই উদযাপনের পরিকল্পনা করে ডিজিটাল ফ্রিডম ফাউন্ডেশন এবং ২০১৪ইং সালে প্রথমবারের মতো এই আয়োজনটি বিশ্বব্যাপী আয়োজিত হবে। যেহেতু সফটওয়্যার মুক্তি দিবস আয়োজনটি এবং এই আয়োজনটি একই সংগঠনের পক্ষ থেকে পরিকল্পিত তাই সফটওয়্যার মুক্তি দিবসের ন্যায় মাসের তৃতীয় শনিবার প্রথা মেনে ২০১৪ সালের জানুয়ারী মাসের তৃতীয় শনিবারে মানে আগামী ১৮ই জানুয়ারী “উন্মুক্ত শিক্ষা দিবস” উদযাপন করার পরিকল্পনা করা হয়েছে।

আমরা এফওএসএস বাংলাদেশ ও বিশ্বের সাথে তাল মিলিয়ে এই দিনটিতে “উন্মুক্ত শিক্ষা দিবস – ২০১৪” — বাংলাদেশ আয়োজন উদযাপন করতে যাচ্ছি। এই দিনে আমরা বাংলাদেশের রাজধানী ঢাকা থেকে একটু দূরে সাভারের রাজফুলবাড়ীয়া এলাকায় অবস্থিত একটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান মোহাম্মদ আলী ইয়াকুব আলী স্কুল ও কলেজে দিনব্যাপী বিভিন্ন আয়োজন করবো। আমাদের এই আয়োজনের মাধ্যমে অংশগ্রহণকারীরা বিশ্বব্যাপী চলমান বিভিন্ন উন্মুক্ত শিক্ষা প্রকল্প, সফটওয়্যার, টুলস, বই ইত্যাদি সম্পর্কে জানতে পারবেন। সকাল ১১টা ৩০মিনিট থেকে শুরু করে বিকাল ৪টা ব্যাপী এই আয়োজনে আপনাদের সবাইকে বন্ধু-স্বজন-আপনজন সহকারে আমন্ত্রন জানাচ্ছি।

আয়োজন স্থল: মোহাম্মদ আলী ইয়াকুব আলী স্কুল ও কলেজ, রাজফুলবাড়ীয়া, সাভার, ঢাকা-১৩৪৭।
তারিখ ও সময়: ১৮ই জানুয়ারী ২০১৪ইং, সকাল ১১টা ৩০মিনিট থেকে বিকাল ৪টা।

আয়োজনের বিস্তারিত সূচী:
১। আমন্ত্রিত অতিথিদের সাথে নিয়ে অনুষ্ঠানের উদ্বোধনী ঘোষনা করা হবে এবং সাথে কিছু স্বাগত বক্তব্য দেবেন আয়োজক এবং আমন্ত্রিত অতিথিবৃন্দ।
২। আয়োজনে বিভিন্ন ধরনের মুক্ত সফটওয়্যার ও শিক্ষায় এগুলোর ব্যবহার নিয়ে উপস্থাপনা ও প্রদর্শনী।
৩। আরো থাকছে বিভিন্ন দেশের বিভিন্ন ”উন্মুক্ত শিক্ষা প্রকল্প” নিয়ে তথ্যচিত্র প্রদর্শনী ও উপস্থাপনা।
৪। থাকছে “জিএনইউ/লিনাক্স ইন্সটলেশন ও ব্যবহারিক সহায়তা সেবা” বুথ। যেখানে আমাদের স্বেচ্ছাসেবকগণ আয়োজনে অংশগ্রহনকারীর পছন্দ অনুসারে তাঁদের ল্যাপটপ কিংবা নেটবুকে লিনাক্স ভিত্তিক বিভিন্ন ডিস্ট্রো ইন্সটল এবং ইন্সটল পরবর্তী নিত্য প্রয়োজনীয় সেটিংসগুলো করে দেবেন। (অনলাইনে ফর্মপূরনকারীরা অগ্রাধিকার পাবেন।)
৫। এছাড়াও আয়োজনস্থলে থাকবে বিভিন্ন জনপ্রিয় লিনাক্স ডিস্ট্রো এবং উন্মুক্ত প্রযুক্তি ভিত্তিক সফটওয়্যারগুলো পেনড্রাইভে/পছন্দের মিডিয়াতে সংগ্রহের ব্যবস্থা।

জিএনইউ/লিনাক্স বিষয়ক ব্যবহারিক সাপোর্ট/সহায়তা সেবাটুকু নিশ্চিত করতে আগাম তথ্য দিয়ে আমাদেরকে আয়োজনে সহায়তা করুন – লিংক থেকে

আয়োজনের বিস্তারিত ও বিশ্ব মানচিত্রে আমাদের আয়োজনের অবস্থান দেখে/খুঁজে নিতে পারেন। আরো বিস্তারিত জানতে ঘুরে আসুন – http://educationfreedomday.org থেকে।

আপডেট:

আয়োজনের কিছু ছবি।

“উন্মুক্ত শিক্ষা দিবস – ২০১৪” বাংলাদেশ উদযাপন পরিষদ